বুধবারের (২২ ফেব্রুয়ারি) দেশের উভয় শেয়ারবাজারে মূল্যসূচক ও আর্থিক লেনদেন বেড়েছে। একইসঙ্গে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ২১ পয়েন্ট বেড়ে দাড়িয়েছে ৫৬২৫ পয়েন্টে। আগের দিন এ সূচক বেড়েছিল ২২ পয়েন্ট।

এদিন ডিএসইতে ১ হাজার ৩০৯ কোটি ১৫ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন হয়েছিল ১ হাজার ২৯৭ কোটি ৯৪ লাখ টাকার। এ হিসাবে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন বেড়েছে ১১ কোটি ২১ লাখ টাকা বা ০.৮৬ শতাংশ।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩২৮টি কোম্পানির মধ্যে ১৩৯টি বা ৪২.৩৮ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ১৩৭টি বা ৪১.৭৭ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫২টি বা ১৫.৮৫ শতাংশ কোম্পানির।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বারাকা পাওয়ারের শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৫৬ কোটি ৮৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ৫২ কোটি ৪৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৪০ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে আইডিএলসি ফাইন্যান্স।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- বেক্সিমকো, একমি ল্যাবরেটরিজ, পদ্মা অয়েল, এ্যাপোলো ইস্পাত, ইফাদ অটোস, জিপিএইচ ইস্পাত ও তিতাস গ্যাস।
এদিন অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৩১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৫৭০ পয়েন্টে। বাজারটিতে ৮০ কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। লেনদেন হওয়া ২৫৫টি ইস্যুর মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৪টির, কমেছে ১০৬টির এবং অপরিবর্তীত রয়েছে ৩৫টির।
আগের দিন সিএসইর সিএসসিএক্স মূল্য সূচক ৪৩ পয়েন্ট বেড়েছিল। আর লেনদেন হয়েছিল ৬৩ কোটি ১৭ লাখ টাকার।