গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার সংবাদ সম্পাদক ও প্রকাশক, বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ, সমাজকর্মী, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ও রাজনীতিবিদ, সিলেট-৬ (গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার) আসনে ২০ দলীয় জোটের সম্ভাব্য সংসদ সদস্য প্রার্থী এডভোকেট মাওলানা রশীদ আহমদ বলেছেন- বই উৎসব ও সৃজনশীল পদ্ধতির পরীক্ষা সাংঘর্ষিক। কঁচি কাঁচাদের কাঁধে বইয়ের বোঝা রেখে সৃজনশীলতার সাফল্য আশা করা যায় না। ক্লাস নির্ভর শিক্ষাদান ও গ্রহণে আমাদের অভ্যস্থ হতে হবে।

গত শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে গোলাপগঞ্জের লক্ষ্মীপাশার কোনাচরে বক্তব্য প্রদানকালে এডভোকেট মাওলানা রশীদ আহমদ আরও বলেন- শিশু কিশোরকে মাতা-পিতা ও অভিভাবক শিক্ষকের হাত ধরিয়ে দেন শুধু বৈষয়িক শিক্ষা দানের জন্য নয়, বরং মানুষ বানিয়ে দেয়ার জন্য। যে শিক্ষা স্বচ্চরিত্রবান ও উন্নত নৈতিকতা সম্পন্ন মানুষ বানাতে ব্যর্থ, সে শিক্ষার আমাদের প্রয়োজন নেই।


স্থানীয় ব্রিলিয়্যান্ট কেয়ার একাডেমী আয়োজিত কৃতি ছাত্রছাত্রীদের সংবর্ধনা ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে তিনি আরও বলেন- জনতার টাকায় সরকারী অফিসারদের বেতন ভাতা দেয়া হয়, সুতরাং জনগণ তাদের কাছে নিরপেক্ষতা আশা করে।

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন একাডেমীর পরিচালক মো. ইসলাম উদ্দিন (সেনাজ)। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পারভেজ তালুকদার, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী জিয়াউল ইসলাম জিতু, বরায়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রাহমান, ইউপি সদস্য ইসমাইল আলী, ভাদেশ্বর মহিলা ডিগ্রী কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক হাফিজ মাওলানা আব্দুল মুহিত, ইউপি সদস্য তারেক আহমদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে একাডেমীর ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক, এলাকার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও একাডেমীর উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য শাহাব উদ্দিন, শাহীন আহমদ, সাদেক আহমদ (সাবু), মতিউর রহমান, ছোয়াব আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।