নয়াদিল্লি সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়েছে। তাকে আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। এরমধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে শেখ হাসিনার চারদিনের ভারত সফরের দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচি।

শনিবার (৮ এপ্রিল) স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় রাষ্ট্রপতি ভবনের অনুষ্ঠানস্থলে প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি পৌঁছালে তাকে প্রহরা দিয়ে অভ্যর্থনা মঞ্চ ফোর কোর্টে নিয়ে যায় প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্টের অশ্বারোহী দল।

সেখানে আগে থেকেই উপস্থিত ছিলেন নরেন্দ্র মোদি। এসময় তিনি শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানান। এরপর বাজানো হয় দু’দেশের জাতীয় সংগীত।

গার্ড অব অনার দেওয়ার পর শেখ হাসিনা পরিচিত হন মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের মন্ত্রীদের সঙ্গে।

আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনা গ্রহণের পর শেখ হাসিনা রাজঘাটে গিয়ে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতা মহাত্মা গান্ধীর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এখানকার আনুষ্ঠানিকতার পর দিনের প্রথমার্ধেই নির্ধারিত রয়েছে বহুল কাঙ্ক্ষিত দ্বি-পাক্ষিক বৈঠক। হায়দ্রাবাদ হাউজের ডেকান সুইটে এই বৈঠকে বসবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপর দ্বি-পাক্ষিক বৈঠক। যা অনুষ্ঠিত হবে হায়দ্রাবাদ হাউজের কনফারেন্স হলে। পরে দুই প্রধানমন্ত্রী এগিয়ে যাবেন এই ভবনেরই বল রুমে। সেখানে একের পর এক চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর। আগেই জানানো হয়েছে, অন্তত ৩৩টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হবে দুই দেশের মধ্যে।