যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বাড়ির মালিকের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন বাংলাদেশি রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী জাকির খান (৪৪)।

স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে বাংলাদেশি-অধ্যুষিত ব্রঙ্কসে এই খুনের ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির পারিবারিক সূত্র প্রথম আলোকে জানায়, প্রতিদিনের মতো কাজ শেষে জাকির তাঁর ভাড়া বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এ সময় তাঁকে ছুরিকাঘাত করেন বাড়ির মালিক। জাকির মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। বাড়ির মালিক নিজেই চিৎকার করে পুলিশে খবর দিতে বলেন। জাকিরকে উদ্ধার করে কাছের জ্যাকবি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

জাকির নিহত হওয়ার ঘটনায় বাড়ির মালিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁর বয়স ৫১ বছর।

প্রতিবেশীদের ভাষ্য, বাড়িভাড়া নিয়ে জাকিরের সঙ্গে মালিকের বছর খানেক ধরে বিরোধ চলছিল।

জাকিরের গ্রামের বাড়ি সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ থানার পাঠানটিলা গ্রামে। ১৯৯২ সালে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসন নেন তিনি।

জাকির নিউইয়র্কে এসে পড়ালেখা শেষ করে রিয়েল এস্টেট ব্যবসার সঙ্গে জড়িত হন। তিনি ব্রঙ্কসে শীর্ষস্থানীয় রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী হিসেবে কমিউনিটিতে পরিচিত লাভ করেন। বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত ছিলেন তিনি।

জাকিরের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে শত শত প্রবাসী বাংলাদেশি জ্যাকবি হাসপাতালে ভিড় করেন। কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে আসে।

জাকিরের স্ত্রী ও তিন সন্তান রয়েছে।

ময়নাতদন্তের জন্য জাকিরের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁর মরদেহ বাংলাদেশে পাঠানো হবে, নাকি নিউইয়র্কে দাফন হবে—এ বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

জাকিরের নিকট আত্মীয় সাইফুল চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, জাকিরের ভাইদের সঙ্গে দেশে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

দৈনিক প্রথম আলো’র সৌজন্যে।