ব্রিটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে হ্যাটট্রিক জয় করে ইতিহাস গড়লেন সিলেটের বিশ্বনাথের মেয়ে রুশনারা আলী। ব্রিটেনের বাঙালি অধ্যুষিত ‘বেথনালগ্রীন বো’ আসন থেকে এমপি নির্বাচিত হওয়ার জন্য টানা তৃতীয়বারের মতো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে এই জয় লাভ করেন। এর আগে টানা দুবার এমপি নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

এবারের নির্বাচনে তার পুরাতন প্রতিদ্বন্ধি আজমল মসরুরকে আবারো পরাজিত করেন। এর আগে আজমল মসরুর লিবারেল ডেমোক্রেট থেকেক প্রার্থী হলেও এবার দাড়িঁয়েছিলেন স্বতন্ত্র। এবার রুশনারা আলী পেয়েছেন ৪২৯৬৯। আর আজমল মসরুর পেয়েছেন ৩৮৮৮ ভোট।

‘বেথনালগ্রিন-বো’ নির্বাচনি আসনটি লেবার পার্টির অন্যতম ঘাঁটি। ২০০৫ সালের নির্বাচনে রেসপেক্ট পার্টির জর্জ গ্যালাওয়ে ছাড়া আর কোনও প্রার্থী এ আসনে বিজয়ী হতে পারেননি। আর আসনটি পুণরুদ্ধারের জন্য ওই বছর লেবার পার্টি প্রথম কোনও বাঙালি প্রার্থী হিসেবে রুশনারা আলীকে মনোনয়ন দেয়। রুশনারা আলী লেবার পার্টির মর্যাদার সেই আসনটি পুনরুদ্ধার করেন।

রুশনারা আলী লেবার পার্টির মনোনয়ন পেয়ে ২০১০ সালের ৬ মে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে ২১ হাজার ৭৮৪ ভোট পেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী লিবারেল ডেমোক্রেট পার্টির আজমল মসরুরকে পরাজিত করেন প্রথম বাঙালি হিসেবে ব্রিটেনে এমপি হন রুশনারা। আজমলকে প্রায় ১১ হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেন তিনি। ২০১৫ সালের ৭ মে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ৩২ হাজার ৩৮৭ ভোট পেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী কনজারভেটিভ পার্টির ম্যাথিও স্মিথকে (৮ হাজার ৭০ ভোট) প্রায় ২৪ হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে টানা দ্বিতীয়বারের মতো এমপি নির্বাচিত হন রুশনারা।
গত বছর এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর রুশনারা আলী লেবার পার্টির ছায়া মন্ত্রীসভায় ‘শিক্ষা ও আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক’ মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি পরামর্শক সংস্থা ইয়ং ফাউন্ডেশনের সহযোগী পরিচালকের দায়িত্বও পালন করছেন।

১৯৭৫ সালের ১৪ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন রুশনারা আলী। তার ডাক নাম স্বপ্না। বাবার বাড়ি ও মামার বাড়ি পাশাপাশি হওয়ার কারণে রুশনারা আলীর ছেলেবেলা কেটেছে নানী মরহুমা গুলেস্তা বিবির সান্নিধ্যে। মাত্র ৭ বছর বয়সে উপজেলার ভূরকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণিতে লেখাপড়া করার সময় বাবা-মায়ের সঙ্গে ব্রিটেনে পাড়ি জমান রুশনারা। সেখানে যাওয়ার পর তিনি যুক্তরাজ্যের লন্ডনের মালবেরি স্কুল ও টাওয়ার হ্যামলেটস কলেজে লেখাপড়া শেষে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাজনীতি, অর্থনীতি ও দর্শনে ডিগ্রি অর্জন করেন। রুশনারা আলী ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ছাড়াও পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়েও কাজ করেছেন।