সদেরা সুজন, সিবিএনএ কানাডা থেকে।। ব্যাপক আনন্দ- উৎসাহ, উদ্দীপনা এবং যথাযোগ্য মর্যাদায় কানাডার বিভিন্ন প্রদেশের শহরে শহরে  উদযাপিত হয়েছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। রোববার সকালে কানাডার প্রতিটি প্রভিন্সের ছোট-বড় শহরে একাধিক স্থানে ঈদ জামাতে অংশ নেন বাংলাদেশি সহ অন্যান্যদেশের মুসলমানরা। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কানাডার প্রধান মন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো সারা কানাডাসহ সারা বিশ্বের মুসলমানদেরকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

ক্যুইবেকে লং হলিডে  এবং কানাডায় সরকারী ছুটির দিন রোববারে ঈদুল ফিতর হওয়াতে বাংলাদেশীসহ কানাডায় বসবাসরত সারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত  মুসলিমদের জন্য  এবছরের ঈদ উৎসব ছিলো ভিন্ন আমেজে উৎসবমুখর। এছাড়া রোদ্রজ্জ্বল চমৎকার ওয়েদার থাকাতে প্রতিটি শহরেই বড় বড় ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিটি জামাতেই বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশীসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলিম নারী-পুরুষ শিশুরা অংশগ্রহণ করে। রঙ-বেরঙের বাহারী পোশাক বিশেষ করে প্রবাসী বাংলাদেশীদের ঐহিত্যবাহি পাঞ্জাবি-পায়াজামা মাথায় টুপী এবং বিপুল সংখ্যক মুসলিমদের একত্রে নামাজে অংশগ্রহণের দৃশ্য মূলধারার মানুষকে চমকিত করেছে।

প্রায় প্রতিটি শহরের ঈদের জামাতের পূর্বে স্থানীয় কানাডার মন্ত্রী,  এমপি, মেয়র, ডেপুটি মেয়র, সিটি কাইন্সিলর, বিভিন্ন দলের রাজনীতিবিদরাসহ সরকারের বিশেষ দূতরা মতবিনিময় এবং ঈদের শুভেচ্ছা এবং শুভ কামনা জানান। সুন্দর সুষ্ঠুভাবে  ঈদের জামাত অনুষ্ঠানের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়।

ঈদের জামাত শেষে অনুষ্ঠিত বিশেষ মুনাজাতে সমগ্র মুসলিম উম্মাহ সহ দেশ-জাতির মঙ্গল ও সমৃদ্ধি এবং দেশে দেশে নিপীড়িত-নির্যাতিত মুসলমানদের রক্ষায় মহান আল্লাহতায়ালার রহমত ও বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সহযোগিতা কামনা করা হয়।

শিশু-কিশোর, নবীন-প্রবীন, দেশী-বিদেশী সবাই চিরায়ত নিয়মে কোলাকুলি, সালাম, শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠিত হয়্। ঈদুল ফিতরের জামাতে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে অনেকেই নিজেদের ছবি ফেসবুকসহ স্যোশাল মিডিয়ায় ছাড়তে ভুল করেননি।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কানাডার প্রধান মন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর শুভেচ্ছা বার্তাটিও স্যোশাল মিডিয়ায় বিশেষ স্থান দখল করে রেখেছে।