সাভারের সীমান্তবর্তী বোর্ডনগর এলাকা থেকে মিজানুর রহমান তালুকদার (৫০) নামে এক পুলিশ কর্মকর্তার লাশ উদ্ধার করেছে রূপনগর থানা পুলিশ। বুধবার (২১ জুন) বিকেলে সাভার ও মিরপুরের মাধামাঝি বেড়িবাঁধের বোর্ডনগর এলাকার একটি জঙ্গল থেকে গলায় কাপড় প্যাঁচানো অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়।
ধারনা করা হচ্ছে, শ্বাসরোধে হত্যা পর তার লাশ ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা। সিআইডির ক্রাইমসিন উইনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন হত্যাকান্ডের আলামত সংগ্রহ করেছে।
হত্যার শিকার মিজানুর রহমান টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল থানার আনেহলা গ্রামের বাকি তালুকদারের ছেলে। তিনি স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে উত্তরা ৫ নম্বর সেক্টরের একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। তিনি হাইওয়ে পুলিশের সাভার সার্কেলের এসএসপি হিসেবে কর্মরত ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।
মিরপুর রুপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ শহিদ আলম জানান, বুধবার ভোরে সাভারের সীমান্তবর্তী মিরপুর বেড়িবাঁধ সড়কে দায়িত্ব পালনের জন্য উত্তরার ৫ নম্বর সেক্টরের ভাড়া বাসা থেকে বের হন নিহত মিজানুর রহমান তালুকদার। এরপর বিকেলে বোর্ডনগর এলাকার পথচারীদের নিকট খবর পেয়ে একটি জঙ্গল থেকে তার মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়। এসময় তার পরনে পুলিশের পোশাক ও পকেটে ব্যবহৃত মোবাইলফোনটি পাওয়া গেলেও তার কাছে থাকা অন্যান্য কিছু খুঁজে পাওয়া যায়নি। ধারনা করা হচ্ছে, সড়কটিতে দায়িত্ব পালনকালে দুর্বৃত্তরা তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশটি গুম করার জন্য পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে ফেলে দেয়।
নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়ার পাশাপাশি একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।
এদিকে, পুলিশ কর্মকর্তাকে শ্বাসরোধে হত্যার খবর পেয়ে সিআইডি পুলিশের একটি বিশেষ দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলামত সংগ্রহ করেছে। ময়না তদন্তের জন্য সন্ধ্যায় লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে নেওয়া হয়েছে।