সদেরা সুজন, সিবিএনএ মন্ট্রিয়ল থেকে : খুব অল্প সময়ে মন্ট্রিয়লের কজন মুক্তিকামী মানুষ কফি খেতে খেতে,চা খেতে খেতে ভেবেছে মহান বিজয় দিবসের সুবর্ণ বরণের কথা,বিজয় স্মরণে একাত্ম হবার কথা । তাই তো গত ১১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় স্থানীয় ক্যাফে রয়ালে আয়োজন করেছিল বিজয় বরণ অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠান সভায় পৌঁছাতেই মিষ্টি মেয়ে সারাহ হাতে তুলে দিচ্ছিল অনুষ্ঠানের সুদৃশ স্যুভেনির। স্যুভেনিরের মুখবন্ধেই জেনে যাই আমরা যে আয়োজকদের কোনো দল নেই। আছে শুধু অনুষ্ঠান শিরোনাম ‘মনে পড়ে ইতিহাস?’

মুফতি ফারুকের শিল্প সম্মত মঞ্চ,অল্প আলোর খেয়া,ডান দিকের পর্দায় ১৯৭১ এর লাল কালো পোস্টার চোখ আটকে রাখছিল নন্দন শোভায়। নেপথ্যে বাজছিল আলীদার বাজানো করুন মূর্ছনা ।

সঙ্গীত পুরুষ মাহমুদুজ্জামান বাবু’র গ্রন্থনায় এক ঘন্টা ১৫ মিনিটের গীতি আলেখ্য ‘মনে পড়ে ইতিহাস?’। পুরো স্ক্রিপ্টটি সাজানো হয়েছে কবিতা, জাহানারা ইমামের একাত্তরের দিনগুলির অংশবিশেষ পাঠ,রবীন্দ্রনাথ,সলিল চৌধুরী ও স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র’র গান।

নীলিমা ইব্রাহিমের আমি বীরাঙ্গনা বলছি থেকে অংশবিশেষ পাঠ,যুদ্ধ/বিজয় শিশু মনোয়ারা ক্লার্ক মৌ’র সাক্ষাতকারের শ্রুতিলিখন। কবিতা নেয়া হয়েছে; রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর,কাজী নজরুল ইসলাম,শামসুর রাহমান,আবুল হাসান,হেলাল হাফিজ ও রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ’র।

আবৃত্তিকার আফাজউদ্দিন তোতন আহমেদ,আরিয়ান হক,মুফতি ফারুক ,সঞ্জীব দাশ উত্তম,ফারাহ মাহজাবীন হোসেন,নাজমা আক্তার মনি ও রোকেয়া চৌধুরী যখন অসাধারণ করে আবৃত্তি করছিলেন;স্লাইডে ছবি ফুটেছিল একাত্তের সেই ভয়াল দিনগুলির। আশরাফুল পাভেলের নেপথ্য সঙ্গীতে দরদ দিয়ে গান গাইছিলেন মন্ট্রিয়লের সুরের ভুবন অনুজা দত্ত।

পিন পতন নিস্তব্ধতায় দর্শক আপ্লুত হচ্ছিলেন আর নষ্টালজিক হচ্ছিলেন সেই ৭১ এর অমর দিনগুলোতে । দেখতে দেখতে কী করে যে সময় শেষ হয়ে এলো,আলো জ্বলে উঠলো অনুষ্ঠানস্থলের,তখনো কানে বাজছিল সবার সম্মিলিত গান : ও আলোর পথযাত্রী।

অনুষ্ঠানের শেষে ছিল নৈশ ভোজ।

মন ছুঁয়ে যাওয়া এ অনুষ্ঠানের নেপথ্যে যারা ছিলেন,তারা হলেন; পরিকল্পনা,সঙ্গীত, ও স্ক্রিপ্ট গ্রন্থনা : মাহমুদুজ্জামান বাবু। মঞ্চ ও আলো,স্ক্রিন : মুফতি ফারুক।শব্দ ব্যবস্থা,আয়োজন : অনুপ চৌধুরী। কন্ঠ সঙ্গীত : অনুজা দত্ত। আবহ সঙ্গীত: আশারফুল পাভেল। স্লাইড ও শব্দ : রোকেয়া চৌধুরী। স্লাইড প্রক্ষেপণ : আলীদা বিনতে সাকী। প্রজেক্টর : আফাজউদ্দিন তোতন আহমেদ। প্রকাশনা নকশা : মিলকি ফারুক।ব্যবস্থাপনা : আবু হোসেন জয়।

অনুষ্ঠানে সিবিএনএসহ বিভিন্ন মিডিয়ার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।